সোমবার , জুলাই ১৩ ২০২০

অর্থনীতির বিভিন্ন খাতের আলোচিত ঘটনা -২০১৯

প্রবৃদ্ধি ৮.১৫ % : গত অর্থবছরেও ৮ দশমিক ১৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে,যা গত তিন দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ। অন্যদিকে মাথাপিছু আয় ১ হাজার ৯০৯ ডলারে উন্নীত হয়েছে।সুদে নয় – ছয়ের বছর: ব্যাংক সুদের হার: ঋণের সুদের হার ৯ শতাংশ ও আমানতের সুদের হার ৬ শতাংশ করার ঘোষণা আসে২০১৮ সালে। ২০১৯ সালে ও তার বাস্তবায়ন হয়নি, বছরজুড়ে শুধু আলোচনাই হয়েছে।
পাটকলে অস্থিরতা : রাষ্ট্রায়ত্ত ২২পাটকলের শ্রমিকেরা প্রায় সারা বছরই আন্দোলনের মধ্যে ছিলেন। ১০ ডিসেম্বর খুলনার পাটকলের সামনে অনশন কর্মসুচি শুরু করেছিলেন শ্রমিকেরা। তখন তীব্র শীতে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়।
প্রথম অবসায়ন: ২০১৯ সালে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান অবসায়নের সিদ্ধান্ত দেখেছে । জুলাই মাসে বাংলাদেশ ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠান পিপলস লিজিংকে অবসায়নের সিদ্ধান্তের কথা জানায় ,যা এখন প্রক্রিয়াধীন।
নতুন তিন ব্যাংক: ব্যংকের আর দরকার নেই,এমন আলাচনার ম্ধ্যেই বাংলাদেশ ব্যাংক বেঙ্গল কমার্শিয়াল পিপলস ও সিটিজেন নামে নতুন তিন ব্যাংকের অনুমোদন দেয়। কেউই এখন্ োকার্যক্রম শুরু করেনি
এক দরজায় সেবা: ১৫ টি সেবা নেয়ে বিডা ফেব্রুয়ারিতে এক দরজায় সেবা চালু করে। বেজাও অক্টোবরে চালু করে এক দরজায় সেবা। যদিও দুই সংস্থার অনেক সেবাই অনলাইনে যুক্ত বাকি।
আট ধাপ উন্নতি: ব্যবসায় পরিবেশের জন্য ২০১৯ ছিল সুখবরের বছর। এ বছর বিশ^ব্যাংকের সহজে ব্যবসা বূচকে ৮ ধাপ উন্নতি করে বাংলাদেশ। ১৮৯ টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান বর্তমানে ১৬৮ কম
বিরোধের বছর: ২০১৯ সাল ছিল টেলিযোগাযোগ খাতে বিরোধের বছর। নিরীক্ষার হিসাবে দুই অপারেটর থেকে ১৩ হাজার ৪৪৭ কোটি টাকা আদায়ে কয়েকটি পদক্ষেপ নেয় বিটিআরসি। বিষয়টি সুরাহা হয়নি,আদালতে বিচারাধীন।
ইজেডে বিনিয়োগ: দেশের অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে বেশ কিছু বিনিয়োগ প্রস্তাব এসেছে। দেশি-বিদেশি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান জমি নিয়েছে। এতে অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে মোট বিনিয়োগ প্রস্তাব ১,৮০০ কোটি ডলার ছাড়িয়েছে।
বিসিকের ব্যর্থতা: চামড়াশিল্প নগরের কাজ শেষ করা,রাসায়নিক শিল্পপার্ক,প্লাস্টিকশিল্প নগরের মতো প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নের বিলম্বে বছরজুড়ে আলোচনায় ছিল বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক)।
পেঁয়াজে চোখে জল: বছরের শেষ দিকে ক্রেতার চোখে জল ঝরিয়েছে পেঁয়াজ। ভারত রপ্তানি বন্ধ করার পর দেশে পেঁয়াজের দাম ২৫০ টাকা পর্যন্ত উঠেছিল। সংকট মেটাতে উড়িয়ে আনতে হয়েছে পেঁয়াজ।
লবনের হুজুগ: এক দিনের জন্য দেশের সবচেয়ে আলোচিত চরিত্র ছিল লবণ।লবণের সংকটের গুজবে মানুষ হুমড়ি খেয়ে পণ্যটি কিনতে লাইন ধরেন। মজুত থাকার গুজুব টি এক দিনের বেশি টেকেনি।
সঞ্চয়পত্রে অনাগ্রহ: সঞ্চয়পত্র বিক্রি উল্লেখযোগ্য হারে কমে গেছে। চলতি অর্থবছরের প্রথম চার মাসে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় সঞ্চয়পত্র বিক্রি করে তিন ভাগের এক ভগ হয়ে গেছে।
খেলাপির বাড়বাড়ন্ত: অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল দায়িত্ব নিয়ে বলেছিলেন,খেলাপি ঋণ ২২ হাজার কোটি বেড়ে ১ লাখ ১৬ হাজার কোটি টাকা হয়েছে।
পানির দরে চামড়া: পবিত্র ঈদুল অজহার আগে চামড়ার দাম ঠিক করা হয়েছিল। কিন্তু দেখা গেল,চামড়া পানির দরে বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছে মানুষ।

Check Also

চারশ কোটি টাকার মালিক হলেন ষষ্ঠ শ্রেণিতে ফেল করা ছেলেটি

একজন সাধারণ মানের ছাত্র ছিলেন ভারতীয় যুবক পিসি মোস্তফা। কেরালার ওয়ানাডের এক প্রত্যন্ত এলাকায় তার …